অটোরিকশা চালকের মামলায় হবিগঞ্জে এসেছেন ‘রাজনীতি’ ছবির পরিচালক ও প্রযোজক

নিজস্ব প্রতিনিধি : অটোরিকশা চালকের মামলায় নোটিশের জবাব দিতে হবিগঞ্জে এসেছেন ‘রাজনীতি’ ছবির পরিচালক বুলবুল বিশ্বাস ও প্রযোজক আশফাক আহমেদ।

রোববার (১৭ ডিসেম্বর) রাতে তারা ডিবি পুলিশের কার্যালয়ে হাজির হন। এ সময় তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। তারাও মামলার বিষয়ে নিজেদের বক্তব্য উপস্থাপন করেছেন।

সোমবার (১৮ ডিসেম্বর) চিত্র নায়ক শাকিব খানের বিরুদ্ধে প্রতারণা ও মানহানির অভিযোগের মামলার ধার্য্য তারিখ।

সবকিছু হারিয়ে শাকিবভক্তদের মোবাইল ফোনে অতিষ্ট হয়ে অবশেষে ইজাজুল গত ২৮ অক্টোবর বানিয়াচং থানায় রাজনীতি সিনেমার প্রযোজক আশফাক আহমেদ, পরিচালক বুলবুল বিশ্বাসের বিরুদ্ধে একটি সাধারণ ডায়রি করেন ইজাজুল মিয়া নামে সিএনজি অটোরিকশা চালক।

মামলা করার কারণ জানলে অবাক হবেন সবাই। সিনেমাটির নায়ক শাকিব খান ছবিতে নায়িকা অপু বিশ্বাসকে যে গ্রামিনফোনের মোবাইল নাম্বারটি দেন সেটি আসলে কাকতালীয়ভাবে হবিগঞ্জর বানিয়াচং উপজলার যাত্রাপাশা গ্রামের মোবারক মিয়ার ছেলে ইজাজুল মিয়ার মোবাইল নাম্বারের সঙ্গে মিলে যায়।

এ ঘটনাই ইজাজুল মিয়ার জীবনে কাল হয়ে দাঁড়ায়। প্রতিদিন শাকিবভক্তদের ৭ থেকে ৮শ’ ফোন কল আসতে থাকে তার মোবাইল ফোনে।

অপরিচিত মেয়েদের কাছ থেকে সারাদিন ফোন আসতে থাকায় স্বামী পরকীয়ায় আসক্ত সন্দেহে স্ত্রী মিশু আক্তার বাপের বাড়িতে চলে যান ১৬ মাস বয়সী একমাত্র শিশু কন্যা ইমুকে নিয়ে।

অন্যদিকে, একের পর এক কল আসায় সিএসজির মালিক বাদল মিয়া ফোন করে সময় মতো ইজাজুলকে না পেয়ে তার সিএনজি অটোরিকশা চালকের চাকরি থেকে বাদ দেন।

পরবর্তীতে ২৯ অক্টোবর আদালতে ৫০ লাখ টাকার মানহানির অভিযোগ এনে একটি মামলাও দায়ের করেন। রোববার ওই মামলায় নোটিশের জবাব দিতে পরিচালক ও প্রযোজক হবিগঞ্জে আসেন।

ইজাজুল মিয়ার আইনজীবী এডভোকেট এম এ মজিদ জানান- ভারতে সালমান খানের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। নায়িকা জেনিফার লোপেজের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে শীর্ষ নায়ক নায়িকার বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। বাংলাদেশে শাকিব খানের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলা নতুন কিছু নয়। আইন সবার জন্য সমান। মামলার বাদী তদন্তকারী কর্মকর্তার কাছে ডকুমেন্টারী এভিডেন্স দিয়েছেন। মামলাটিও ডকুমেন্টারী এভিডেন্সের উপর ভিত্তি করে দায়ের করা। আমরা আশা করব, দ্রুত তদন্ত প্রতিবেদন কোর্টে দাখিল করা হবে এবং আসামীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ডিবি’র এসআই ইকবাল বাহার জানান, তাদেরকে মামলার বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। তদন্ত শেষে আদালতে রিপোর্ট দেয়া হবে। মামলাটির তদন্তভার প্রথমে তার কাছে ছিল। বর্তমানে মামলাটির তদন্ত করছেন ডিবি’র ওসি মো. শাহ আলম।

জানা যায়, প্রায় ২ ঘটা ১৬ মিনিটের সিনেমা ‘রাজনীতি’র একটি দৃশ্যে (২৬ মিনিট ১২ সেকেন্ডের সময়) নায়িকা অপু বিশ্বাস তার ডায়লগে বলেন, ‘এভাবে বার বার আর কোনো দিন চলে যেত দেব না আমার স্বপের রাজকুমার, জবাবে নায়ক শাকিব খান বলেন, ‘আমিও তোমাকে আর ছেড়ে যাব না আমার রাজ কুমারী’।

তখন নায়িকা অপু জানতে চান ‘আমার ফেইসবুক আইডি যে ‘রাজকুমারী’ তুমি তা জানলে কী করে? জবাবে নায়ক শাকিব খান বলেন, ‘যেভাব তুমি জান আমার মোবাইল নাম্বার ০১৭১৫-২৯৫২২৬’।

প্রকৃতপক্ষে গ্রামীণফোনের ০১৭১৫-২৯৫২২৬ মোবাইল নাম্বারটি চিত্র নায়ক শাকিব খানের নয়। কাকতালীয়ভাবেই এটি হবিগঞ্জর বানিয়াচং উপজলার যাত্রাপাশা গ্রামের মোবারক মিয়ার ছেলে ইজাজুল মিয়ার নাম্বারের সঙ্গে মিলে যায়। আর এ থেকেই সমস্যার শুরু।

     এই ক্যাটাগরীর আরো খবর

ge-418" />