চুনারুঘাটের ইউএনও কাইজার এম ফারাবীর হস্তক্ষেপে বাল্যবিয়ে পণ্ড

নিজস্ব প্রতিনিধি: হবিগঞ্জ জেলার চুনারুঘাট উপজেলার নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) কাইজার মোহাম্মদ ফারাবি হস্তক্ষেপে বন্ধ হল বাল্য বিয়ে।

বৃহস্পতিবার (২৬ অক্টোবর) দুপুরে ছাত্রীর সহপাঠিদের অভিযোগের প্রেক্ষিতে বাল্য বিয়ে বন্ধ করে দেন উপজেলা প্রশাসন।

উপজেলার পৌর এলাকার ৯নং ওয়ার্ডের চন্দনা গ্রামে আয়োজিত রত্নার (১৫) স্কুল ছাত্রীর বিয়ের আয়োজনের খবর পেয়ে ইউএনও তাদের বাড়িতে গিয়ে অভিভাকদের সাথে বাল্যবিয়ের কুফল ও আইনী দিক নিয়ে কথা বলে তাদের জানান ১৮ এর আগে বিয়ে নয়।

বাল্য বিয়ের কুফল ও আইনি দিক নিয়ে অভিভাবকদের সাথে কথা বলছেন ইউএনও
মেয়েটি চুনারুঘাট পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রী ছিল, বর্তমানে পড়াশোনা বন্ধ। ইউএনও তাকে কারিগরি প্রশিক্ষণ প্রদান করে আত্ম-কর্মসংস্থানের ব্যস্থারও আশ্বাস দেন।

ইউএনও চুনারুঘাটের ফেসবুক আইডিতে তিনি লিখেন Salute তোমাদের….
চুনারুঘাট পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের এক ঝাঁক তাঁরা (star) ও অন্যায়ের প্রতিবাদী কন্ঠ ( তাসফিয়া, উপমা, সাইমা, রিজওয়ানা, সুস্মিতাসহ জনাদশেক) আজ দুপুরে আমার কাছে এসে বিয়ে আয়োজনের খবরটি জানায়। স্যালুট তোমাদের, তোমরা বিজয়ী হও সর্বক্ষেত্রে।

তিনি কয়েকদিন আগেও একটি বাল্য বিয়ে ভেঙ্গে দেন।

     এই ক্যাটাগরীর আরো খবর

ge-418" />