চুনারুঘাট-শায়েস্তাগঞ্জ সড়কে ভূমি দখল ও খাল ভরাটের হিড়িক

চুনারুঘাট প্রতিনিধি : হবিগঞ্জের চুনারুঘাট-শায়েস্তাগঞ্জ সড়ক ও জনপথ বিভাগের সড়কের শ্রীকুটা ও দূর্গাপুর বাজারে সরকারী সম্পত্তি এবং সড়ক ও জনপথ বিভাগের ভূমি জবর দখল ও খাল ভরাটের হিড়িক পড়েছে। ইতিপূর্বে ঐ সড়কে বেহাত হয়েছে অন্তত: ২ কোটি টাকার সরকারী সম্পত্তি।

পরিবেশ আইন লঙ্ঘন করে কিছু প্রভাবশালী নাকের ডগায় বসে সড়ক ও জনপথের পাশের সরকারী জমি ভরাট করে ইট ভাটা ও ঘর বাড়ী নির্মাণ এবং কিছু কিছু জমি চড়া দামে দখল বিক্রি করছে। এতে একদিকে ধ্বংস হচ্ছে পরিবেশ। অন্যদিকে সরকারী ভূমি বেদখল হচ্ছে। এর ফলে বর্ষা মৌসুমে পানি নিষ্কাশনের পথ বন্ধ হয়ে তীব্র জলাবদ্ধতা দেখা দেবে।

সরেজমিন ও অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, পুরাতন ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের চুনারুঘাট-শায়েস্তাগঞ্জ সড়কের চানভাঙ্গা নামক স্থানে প্রভাবশালী এক ব্যক্তি সড়ক ও জনপথের পাশের প্রায় অর্ধ কি.মি. জায়গা দখল করে ইট ভাটা নির্মাণ করেছেন। এতে দূষিত হচ্ছে পরিবেশ।

তাছাড়া ওই সড়কের দূর্গাপুর বাজারে প্রভাবশালী লোকজন সড়ক ও জনপথের জায়গা দখল করে দোকান ঘর নির্মাণ এবং লক্ষ লক্ষ টাকায় দখল বিক্রি করছেন। এ নিয়ে সড়ক ও জনপথ বিভাগ সম্পূর্ণ উদাসীন।

এ বিষয়ে সড়ক ও জনপথ বিভাগের শায়েস্তাগঞ্জের উপ-সহকারী প্রকৌশলী মাসুম সিদ্দিকীর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, চুনারুঘাট-শায়েস্তাগঞ্জ সড়কের বেদখল হওয়া সড়ক ও জনপথের ভূমি দখলমুক্ত করার লক্ষে দখলকারীদের নামের তালিকা তৈরী করা হচ্ছে। খুব শীগগির উচ্ছেদ অভিযান চালানো হবে।

তিনি বলেন, সড়ক ও জনপথের জায়গা দখল করে ইট ভাটা নির্মান এবং নিচু জমিতে মাটি ভরাট করা দুটিই শাস্তিযোগ্য অপরাধ। সরকারী ভূমি জবর দখল ও পরিবেশ আইন লঙ্ঘনের ব্যাপারে চুনারুঘাটের ইউএনও মহোদয়কে চিঠি দেওয়া হয়েছে।

     এই ক্যাটাগরীর আরো খবর

ge-418" />