বানিয়াচঙ্গের ইউএনও’র নাম্বার ক্লোন

বানিয়াচং প্রতিনিধি: হবিগঞ্জের বানিয়াচং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সন্দীপ কুমার সিংহের ব্যক্তিগত ফোন নম্বর ক্লোন করে অনৈতিক সুবিধা নেয়ার চেষ্টা করেছে দুর্বৃত্তরা।

শুক্রবার (১৩ অক্টোবর) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে তার মোবাইলে ব্যবহৃত সিম নম্বর ক্লোন করে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানদের সুবিধা প্রদানের প্রস্তাব দেয়া হয়। বিনিময়ে চাওয়া হয় মোটা অংকের টাকা।

বিষয়টি জানতে পেরে শুক্রবার রাত ৮টার দিকে ইউএনও নিজেই বানিয়াচং থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন।

লিখিত অভিযোগে বলা হয়, শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে উত্তর-পশ্চিম ইউপি চেয়ারম্যান ওয়ারিশ উদ্দিন খানের মোবাইল নম্বরে ইউএনও সন্দীপ কুমার সিংহের ব্যক্তিগত ব্যবহৃত গ্রামীণফোন মোবাইল নম্বর থেকে ফোন আসে। ওপাশ থেকে বলা হয়, বিকাশে টাকা পাঠালে সরকারি বিশেষ বরাদ্দ দেয়া হবে। তবে চেয়ারম্যানের সন্দেহ হলে ইউএনও’র কার্যালয়ে ছুটে গিয়ে বিষয়টি অবহিত করেন।

এ সময় চেয়ারম্যানের ফোনের রিসিভ লিস্টে ইউএনও’র নাম দিয়ে সংরক্ষণ করা নম্বরটিতে পুনরায় ফোন করে দেখা যায় নম্বরটি ব্যবহৃত হচ্ছে না। ইউএনও’র নম্বরটি বন্ধ করে অন্য নম্বর থেকে ইউএনও’র নম্বরে ফোন দিলে দেখায় কল ফরওয়ার্ড।

একই কায়দায় উপজেলার মক্রমপুর ইউপি চেয়ারম্যান আহাদ মিয়া ও চেয়ারম্যান লুৎফুর রহমানসহ আরও ক’জন চেয়ারম্যানের কাছে ফোন করে অনৈতিক সুবিধা নেয়ার ব্যর্থ চেষ্টা করে দুবৃর্ত্তরা।

পরে মোবাইল অপারেটর গ্রামীণফোনের ১২১ এ যোগাযোগ করেন ইউএনও সন্দীপ কুমার। গ্রামীণফোনের পরার্মশে তাৎক্ষনিক বানিয়াচং থানায় জিডি করেন ইউএনও।

ইউএনও সন্দীপ কুমার সিংহ গণমাধ্যমের সাহায্যে পরিচিতদের উদ্দেশে বলেন, তার নম্বর থেকে ভুয়া ও বিভ্রান্তিমূলক ফোন পেলে দ্রুত বিষয়টি তাকে অবহিত করার জন্য।

     এই ক্যাটাগরীর আরো খবর

ge-418" />