বানিয়াচঙ্গয়ে যৌন হয়রানির দায়ে যুবকের কারাদণ্ড

বানিয়াচঙ্গ প্রতিনিধি: হবিগঞ্জের বানিয়াচঙ্গয়ে এক মাদ্রাসা ছাত্রীকে যৌন হয়রানি ও শারীরিক নির্যাতনের দায়ে
খায়রুল ইসলাম (২৭) নামের এক যুবককে ৩ মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইউএনও সন্দ্বীপ কুমার সিংহ।

বৃহস্পতিবার (২৩ নভেম্বর) দুপুরে ইউএনও’র অফিসে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত হয়। দণ্ডিত যুবক খায়রুল ইসলাম পুকড়া ইউপির কাটখাল গ্রামের সিজিল মিয়ার ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, আওয়াল মহল গ্রামের এক ছাত্রীকে স্কুলে আসা-যাওয়ার পথে যৌন হয়রানি করত খায়রুল। এক পর্যায়ে নির্যাতনে অতিষ্ঠ হয়ে ঐ ছাত্রীর অভিভাবকরা ছাত্রীকে স্কুল পরিবর্তন করে ঢাকার একটি মাদ্রাসায় ভর্তি করান।

সম্প্রতি ওই ছাত্রী ছুটিতে বাড়ি আসেন। খায়রুলের বাড়ির সামনের রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সময় ছাত্রীকে জোরপূর্বক তুলে নিয়ে ঘরের মধ্যে হাত-পা বেঁধে নির্যাতন করে খায়রুল। পরে খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে ছাত্রীকে উদ্ধার করে। পুলিশ বুধবার (২২ নভেম্বর) সকালে খায়রুলকে আটক করে ভ্রাম্যমাণ আদালতে সোপর্দ করেন।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইউএনও সন্দ্বীপ কুমার সিংহ বলেন, যৌন হয়রানি ও শারীরিক নির্যাতনের ঘটনায় খায়রুল ইসলাম নামের এক যুবককে ৩ মাসের কারাদণ্ড দিয়ে থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।

     এই ক্যাটাগরীর আরো খবর

ge-418" />