হবিগঞ্জে শীত নিবারণ করতে গিয়ে ঝলছে গেছে ১০ জনের শরীর

নিজস্ব প্রতিনিধি : হবিগঞ্জের বিভিন্ন উপজেলায় শীত নিবারণ করতে গিয়ে গায়ে আগুণ লেগে শিশু মহিলাসহ অন্তত ১০ জনের শরীর ঝলসে গেছে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় একজনকে ঢাকা মেডিকেল বার্ন ইউনিটে ও অন্যান্যদের সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

সোমবার (৮ জানুয়ারী) সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত এসব ঘটনা ঘটে। স্থানীয় ও হাসপাতাল সূত্র জানায়, গত তিন দিন যাবত হবিগঞ্জের উপর দিয়ে ঘন কুয়াশা মৃদু বাতাস বয়ে যাচ্ছে। ফলে দেখা দিয়েছে তীব্র শৈত্য প্রবাহ।

সোমবার সকাল থেকে শুরু করে সন্ধ্যা পর্যন্ত তীব্র ঠান্ডা থেকে বাচতে জেলার বিভিন্ন স্থানে খড়কোটা জালিয়ে শীত নিবারণ করার চেষ্টা করা হয়।

এ সময় অসাবধানতা বশত শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার পুরাসুন্দা গ্রামের মৃত কাদির মিয়ার স্ত্রী আমিরুন্নেছা (৫০), বাহুবল অড়াইডেকা গ্রামের এংরাজ মিয়ার শিশু কন্যা প্রিয়া আক্তার (৫), শহরের মোহনপুর এলাকার রাসেল মিয়ার কন্যা রূপা আক্তার (১১), শহরতলীর মাছুলিয়া গ্রামের আলকাছ মিয়ার কন্যা আফরিন (৫) সহ অন্তত ১০ জন ঝলছে যায়।

স্থানীয়রা তাদেরকে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করান। এর মধ্যে আমিরুন্নেছাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ বার্ণ ইউনিটে প্রেরণ করেন কর্তব্যরত চিকিৎসক।

হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালের কর্তব্যরত ডাঃ দেবাশীষ রায় জানান, শিশু মহিলাসহ অনেকেই আগুনে ঝলছে গেছে। এর মধ্যে আমিরুন্নেছার শরীরের অধিকাংশ স্থান ঝলসে যাওয়ায় তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ণ ইউনিটে প্রেরণ করা হয়েছে।

     এই ক্যাটাগরীর আরো খবর

ge-418" />