হবিগঞ্জ হাসপাতালে দালাল দ্বারা সাংবাদিক শাহ আলম আহত

নিজস্ব প্রতিনিধি : হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে দালালদের দৌরাত্ম। বাধা দেয়ায় সাংবাদিকের উপর হামলার ঘটনা ঘটেছে।

বৃহস্পতিবার (২৫ জানুয়ারী) দুপুরে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটে। আহত সাংবাদিক শাহ আলম জননী পত্রিকার স্টাফ রিপোর্টার। এ সময় তাকে রক্ষা করতে গিয়ে সাংবাদিক এসএম সুরুজ আলী ও হাসপাতালের ব্লাড ব্যাংকের সহায়ক সুমন আহমেদ ও আহত হন।

সম্প্রতি হবিগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এমপি আবু জাহির দালাল নির্মূল করতে কমিটি করে দেন। তারপর কিছুদিন দালালদের উৎপাত হাসপাতালে বন্ধ থাকলে সম্প্রতি আবারো দালালদের উৎপাত বৃদ্ধি পেয়েছে।

এ নিয়ে একাধিকবার সংবাদ প্রকাশ হলেও প্রশাসন কোন ব্যবস্থা নিচ্ছে না। গতকাল সাংবাদিক শাহ আলম তার ভাতিজা মাদ্রাসা ছাত্র হৃদয় আহমেদ (১২) ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হলে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগে ভর্তি করেন। এ সময় রুবেল নামে এক যুবক তার প্রেসক্রিপশন নিয়ে টানা হেচড়া শুরু করে। এ সময় শাহ আলম বাধা দিলে তার উপর চড়াও হয়। এক পর্যায়ে ৪/৫ জন যুবক নিয়ে এসে শাহ আলমের উপর হামলা চালায় এবং তাকে পিটিয়ে আহত করে।

এ সময় তাকে বাঁচাতে সাংবাদিক এসএম সুরুজ আলী ও হাসপাতালের ব্ল্যাড ব্যাংকের মাষ্টাররোলের অফিস সহায়ক সুমন এগিয়ে এলে তাদের উপর হামলা করে তারা। এক পর্যায়ে হাসপাতালে হট্টগোল সৃষ্টি হয়। রোগীরা দিকবিদিক ছুটাছুটি শুরু করে। পরে হাসপাতালের কর্মচারি ও স্থানীয় লোকজনের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি শান্ত হয়। দালালদের হামলায় শাহ আলম গুরুতর আহত হলে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

খবর পেয়ে জননীর ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক এসএম ফজলে রাব্বী রাসেলসহ সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ সদর হাসপাতালে ছুটে যান এবং দালালদের গ্রেফতারের দাবি জানান।

এদিকে বৃহস্পতিবার রাত ৮টায় সদর থানার এসআই রকিবুল হাসানের নেতৃত্বে একদল পুলিশ সদর হাসপাতাল এলাকা থেকে দালাল রুবেল আহমেদকে আটক করেন।

সদর থানার ওসি ইয়াছিনুল হক জানান, ঘটনার সাথে যারা জড়িত তাদের ধরতে অভিযান অব্যাহত আছে।

     এই ক্যাটাগরীর আরো খবর

ge-418" />