1. info@jonomoth.com : admi2017 : জনমত নিউজ
  2. jonomoth24@gmail.com : Jonomoth .com : Jonomoth News .com

চুনারুঘাটে মাদক ব্যবসায়ী ভূয়া সাংবাদিক গ্রেফতার

ষ্টাফ রিপোর্টার : স্বভাব বদলায়নি, বদলেছে কৌশল আইনশৃংখলা বাহিনীর চলমান মাদকবিরােধী অভিযানের পরও বদলায়নি মাদক ব্যবসায়ীদের স্বভাব। বন্ধ হয়নি মাদকের চালান। অভিযানের মধ্যেই ভিন্ন কৌশললে মাদক পাচার করছে ব্যবসায়ীরা। মিজানুর রহমান সুমন এফআইর টিভির ডাইরেক্টর কো অর্ডিনেটরএলাকা সমগ্র বাংলাদেশ নামে ভূয়া সাংবাদিক ৭কেজি গাজার মামলার পলাতক আসামীকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। বৃহস্পতিবার গভীর রাতে চুনারুঘাট স্থানীয় মধ্য বাজার থেকে চুনারুঘাট থানার এএসআই শরীফ তাকে গ্রেফেতার করেন। কথিত সাংবাদিক এর আগে ১০ আগষ্ট পৌরসভার হাতুন্ডা এলাকায় এস আই সুমুনুর রহমান ও এএসআই শরীফসহ একদল পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তার শ্যালক বি-বাড়ীয়া
জেলার নাসিরনগর থানার ধরমন্ডল গ্রামের হাছন আলীর পুত্র শাহজাহান (৩৫)সহ গাজা পাচারকালে পুলিশের কাছে গ্রেফতার হয়েছিল। তারা জামিনে এসে ফের বিভিন্ন অভিনব কায়দায় মাদক ব্যবসা করে আসছে। পুলিশ জানায় , চুনারুঘাট পৌরসভার চন্দনার মৃত আব্দুল গফুরের ছেলে মিজানুর রহমান সুমন(৩০) উপজেলার সীমান্ত এলাকাসহ জেলার বিভিন্ন স্থানে গাজা পাচারের উদেশ্যে নোহা গাড়ি যার গাড়ি নং ঢাকা মেট্রো – চ ১১ -৬১৬৪ । সুমন তার শশুর বাড়ি বি- বাড়িয়ায় থেকে গাড়ি যোগে সে দীর্ঘদিন মাদকের বড় বড় চালান চুনারুঘাট আনা-নেয়া করে
আসছিলো। সে পুলিশের কাছ থেকে বাচতে সুমন সাংবাদিকের স্টিকার লাগিয়ে এবার ব্যবসায় নামছে, পুলিশে ধরলে সাংবাদিক পরিচয়ে এড়িয়ে যেত । সে তার সঠিক পরিচয় গোপন করে দেশের বিভিন্ন জেলায় বিলাস বহুল গাড়ি যোগে মাদক পাচার পুলিশের নজরে আসে। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে থানার একদল পুলিশ মিজানকে গ্রেফতার
করেন। একাধিক সুত্রে জানাগেছে সুমনের বিরোদ্ধে মাদক ব্যবসা ছাড়াও চুরি ডাকাতিরও অভিযোগ রয়েছে, উক্ত চক্রটি সময়ে গোয়েন্দার লোক আর কখনো মানাধিকার সাংবাদিক পরিচয়ে দিয়ে মাদক ব্যবসা করে আসছে বলে জানাগেছে। মাদক
মামলার তদন্ত কর্মকর্তা জানান, চক্রটি অনেক দিন থেকে মাদক বহরের সাথেজড়িত আমাদের কাছে তথ্য ছিল আমরা তাদের সঙ্গী সবকটিকে ধরার চেষ্টা করছি।সে বিভিন্ন বিভিন্ন জেলায় এভাবেই মাদক বহন করে আসছে।শ্যালক শাহজাহান বলে
তার দুলাভাই সুমন সর্বশেষ তার নিজ এলাকায় মাদক সে চুক্তিতে তার বিপুল পরিমান মাদক বি- বাড়িয়া থেকে চুনারুঘাটে আনে।বি-বাড়িয়া থেকে আনা এসব মাদক মাধবপুর সাতছড়ি হয়ে চুনারুঘাট তার বোনের বাড়ি দুলাভাই সুমনের ঘরে রেখে হবিগঞ্জ জেলায় বিক্রি করে আসছে। আর শ্যালক শাহজাহান তার নিজ জেলা বি-বাড়িয়ায় তার সংর্ঘব্ধ দল নিয়ে বিক্রি করে আসছে বলে পুলিশের কাছে স্বীকার
করে। মাদক ব্যবসায়ী সুমন ব্যবসার সুবাদে তার মাদক ব্যবসায়ী পার্টনার শাহজাহানের বোন কে বিয়ে করে মাদক ব্যবসা জমিয়ে তুলেছে বি-বাড়ীয়া জেলায়।
সুমন দরমন্ডল এলাকায় মাদক ব্যবসায় তার বেশ পরিচিতি রয়েছে, তার শালা মিলে চুনারুঘাট ও বি-বাড়ীয়া মাদক ব্যবসায় নেতৃত্ব দিয়ে আসছে। এদিকে মাদক ব্যবসায়ীসহ মাদকের বড় বড় চালান আটক হওয়ায় চুনারুঘাট উপজেলা জুড়ে ব্যাপক
চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।এদিকে একই রাতে বিভিন্ন মামলার ওয়ারেন্টভূক্ত ৩ পলাতক আসামিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃতরা হল বন মামলার
অমৃত(২৭), মিনু মিয়া(৪৫) সুমন (৩০) গ্রেফতারকৃতদের আদালতে সোপর্দ করা
হয়েছে। ওসি কেএম আজমিরুজ্জামান জানান ,সুমন দীর্ঘদিন ধরে সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে ইয়াবা ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছিল। গোপন সংবাদে পাওয়া নিশ্চিত তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে
হাতেনাতে আটক করতে সক্ষম হওয়া গেছে। তিনি বলেন, পুলিশের হাত থেকে বাঁচতে
নিজেকে সাংবাদিক পরিচয় দিত । কিন্তু তল্লাাশি চালিয়ে তার কাছ থেকে নাম সর্বস্ব একটি অনলাইন এফআই আর টিভির আইডি কার্ড উদ্ধার করা হয়। তার বিরোদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের ২টি মামলা রয়েছে

     এই ক্যাটাগরীর আরো খবর