1. info@jonomoth.com : admi2017 : জনমত নিউজ
  2. jonomoth24@gmail.com : Jonomoth .com : Jonomoth News .com

হবিগঞ্জ সদর উপজেলার ধোপাখাল বাজারে হামলা-ভাংচুর : আহত ৫০

নিজস্ব প্রতিনিধি : হবিগঞ্জ সদর উপজেলার ধোপাখাল বাজারে বাচ্চাদের খেলার তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুই দল লোকের সংঘর্ষে ৫০জন আহত হয়েছে।

শুক্রবার রাত ৯ টায় স্থানীয় বাজারে এ ঘটনা ঘটে। আহত সুত্রে জানা যায়, শরীফপুর গ্রামের আব্দুল মন্নাফের পুত্র আবুল খায়ের (১৫) ও চাঁনপুর গ্রামের হাসন আলীর পুত্র আবুল কাশেম (১৪) এর সাথে স্থানীয় ছিতমকালী মাঠে ফুটবল খেলা নিয়ে বাক-বিতন্ডা হয়। পরে বিষয়টি তাদের অভিভাবকরা অবগত হলে শরীফপুর গ্রামের আব্দুল মন্নাফের নেতৃত্বে ওই এলাকার কটিয়াদি বাজারে এক মিটিংয়ের আয়োজন করা হয়, মিটিং শেষে চাঁনপুর গ্রামের বাড়ি-ঘর ও দোকানপাটে হামলা ও ভাংচুর করা হয়।

এ সময় চাঁনপুর গ্রামের মোঃ মেরাজ মিয়ার পুত্র মোঃ নাছির উদ্দিন (৩৫), মিন্নত আলীর পুত্র মামুন মিয়া (৪০), মৃত গিয়াস উদ্দিনের পুত্র এরশাদ মিয়া (৩০)সহ আরও কয়েকজন আহত হয়। পরে স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে পরিস্থিতি শান্ত হয়।

নাম প্রকাশ্যে অনিচ্ছুক পাশ্ববর্তী হাতিরথান গ্রামের এক দোকানদার জানান, শরীফপুর গ্রামের প্রায় ২’শতাধিক লোকজন দেশীয় অস্ত্র-সস্ত্র নিয়ে পরিকল্পীত ভাবে চাঁনপুর গ্রামের বাড়ি ঘরে হামলা চালায়। এর আগে স্থানীয় ধোপাখাল বাজারের মা ফার্মেসী ও আরও কয়েকটি দোকানে হামলা করে ভাংচুরের তান্ডব চালায়।

এ সময় নাছির উদ্দিন, এরশাদ মিয়াসহ কয়েকজনকে দোকানের ভেতরে অবরুদ্ধ করে রাখে। পরে জাতীয় নিরাপত্তা হট লাইন ৯৯৯ এ কল দিয়ে পুলিশকে অবগত করা হয়। পরে স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে তাদের উদ্ধার করা হয়।

আহত নাসির উদ্দিন জানান, শরীফপুর গ্রামের লোকজন স্থানীয়তার প্রভাব দেখিয়ে সাধারণ মানুষকে নানা সময় হয়রাণি করে থাকে, এরা এলাকায় চুরি-ছিনতাই নানা অপকর্ম করে থাকে। এমনকি সাধারণ তুচ্ছ বিষয়কে কেন্দ্র করে এরা বৃহৎ দাঙ্গায় লিপ্ত হয়ে থাকে। এ বিষয়টির সুষ্ঠ প্রতিকার প্রয়োজন।

ঘটনাটি শুক্রবার রাতে হবিগঞ্জ সদর থানার ওসি মোঃ মাসুক আলীকে মৌখিক ভাবে তারা অবগত করেছেন বলে জানা গেছে। এ ব্যাপারে হবিগঞ্জ সদর থানার ওসি মোঃ মাসুক আলী জানান, বিষয়টি জেনেছি। প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

     এই ক্যাটাগরীর আরো খবর